১১:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নবীনগরে চার মাসের শিশুর রহস্যজনক মৃত্যু

ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর উপজেলার বিদ্যাকুট গ্রামে ৪ মাসের নবজাতক শিশু হাজেরার রহস্যজনক মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। নিহত শিশু হাজেরা বিদ্যাকুট গ্রামের প্রবাসী অলিউল্লার মেয়ে। শনিবার সকালে বাড়ির পাশের পুকুর থেকে ওই শিশুর লাশ উদ্ধার করে স্থানীয়রা। এই মর্মান্তিক ঘটনায় ওই পরিবার ও স্থানীয় লোকজনের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, শিশু সন্তান কে সঙ্গে নিয়ে শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে ঘুমিয়ে ছিলেন মা রোমা বেগম। রাত দুই টায় ঘুম থেকে উঠে টয়লেটে যায়, সেখান থেকে এসে তিনি আবার ঘুমিয়ে পড়েন। হঠাৎ ভোর রাত ৫ টায় ঘুম ভেঙে গেলে দেখেন ঘরের দর্জা খোলা পাশে শিশু সন্তান নেই। অনেক খুঁজেও তাকে আর পাওয়া যায়নি। পরে আশেপাশের লোকজনও খুঁজতে শুরু করে। একপর্যায়ে তাকে বাড়ির পাশে একটি পুকুরে ভাসমান অবস্থায় পাওয়া যায়।

শিশুর মা রোমা বেগম বলেন, সন্ধায় আমার শিশু সন্তান কে নিয়ে ঘুমিয়ে ছিলাম।রাত দুই টায় ঘুম থেকে উঠে টয়লেটে যায়,তারপর আবার ঘুমিয়ে গিয়েছিলাম। ভোর ৫ টায় ঘুম থেকে উঠে দেখি ঘরের দর্জা খোলা পাশে আমার সন্তান নেই।

নবীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মাহাবুব আলম মৃত্যুর ঘটনাটি নিশ্চিত করে বলেন,শিশুটির লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া মরগে পাঠানো হয়েছে। চার মাসের শিশু কিভাবে পুকুরে গেলো খোঁজখবর নিচ্ছি পরে জানানো হবে।

Facebook Comments Box
ট্যাগ :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

সম্পাদনাকারীর তথ্য

Dipu

❅ জনপ্রিয়

নবীনগরে চার মাসের শিশুর রহস্যজনক মৃত্যু

আপডেট : ০২:৪১:১২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২১ অক্টোবর ২০২৩

ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর উপজেলার বিদ্যাকুট গ্রামে ৪ মাসের নবজাতক শিশু হাজেরার রহস্যজনক মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। নিহত শিশু হাজেরা বিদ্যাকুট গ্রামের প্রবাসী অলিউল্লার মেয়ে। শনিবার সকালে বাড়ির পাশের পুকুর থেকে ওই শিশুর লাশ উদ্ধার করে স্থানীয়রা। এই মর্মান্তিক ঘটনায় ওই পরিবার ও স্থানীয় লোকজনের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, শিশু সন্তান কে সঙ্গে নিয়ে শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে ঘুমিয়ে ছিলেন মা রোমা বেগম। রাত দুই টায় ঘুম থেকে উঠে টয়লেটে যায়, সেখান থেকে এসে তিনি আবার ঘুমিয়ে পড়েন। হঠাৎ ভোর রাত ৫ টায় ঘুম ভেঙে গেলে দেখেন ঘরের দর্জা খোলা পাশে শিশু সন্তান নেই। অনেক খুঁজেও তাকে আর পাওয়া যায়নি। পরে আশেপাশের লোকজনও খুঁজতে শুরু করে। একপর্যায়ে তাকে বাড়ির পাশে একটি পুকুরে ভাসমান অবস্থায় পাওয়া যায়।

শিশুর মা রোমা বেগম বলেন, সন্ধায় আমার শিশু সন্তান কে নিয়ে ঘুমিয়ে ছিলাম।রাত দুই টায় ঘুম থেকে উঠে টয়লেটে যায়,তারপর আবার ঘুমিয়ে গিয়েছিলাম। ভোর ৫ টায় ঘুম থেকে উঠে দেখি ঘরের দর্জা খোলা পাশে আমার সন্তান নেই।

নবীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মাহাবুব আলম মৃত্যুর ঘটনাটি নিশ্চিত করে বলেন,শিশুটির লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া মরগে পাঠানো হয়েছে। চার মাসের শিশু কিভাবে পুকুরে গেলো খোঁজখবর নিচ্ছি পরে জানানো হবে।

Facebook Comments Box